ইসলাম গ্রহণের খবরে যারা খুশিতে বাকবাকুম হন


আপনি অনেক ভালো বক্তা। ইসলামে অগাধ পাণ্ডিত্য। কোর’আন-হাদীসের লাইন বাই লাইন না দেখে পড়ে যেতে পারেন। আপনার কোটি কোটি ভক্ত। যুক্তিবিদ্যায় বড়ই দখল আপনার। আপনার দাওয়াত পেয়ে ইউরোপ-আমেরিকায় ইসলাম গ্রহণের হিড়িক পড়ে। হাজার হাজার মানুষ আপনার কথায় মুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণ করে মুসলমান হচ্ছে। এ জন্য মুসলিম বিশ্বে আপনার বিরাট নাম-ডাক।

কিন্তু ভাইজান, আপনার এই এত এত জ্ঞান, এত পাণ্ডিত্য, এত যুক্তিবিদ্যা আর এত পরিশ্রমের আলটিমেট ফলাফলটা কী হচ্ছে? অমুসলিমরা মুসলিম হচ্ছে- এ পর্যন্তই? ইউরোপে ইসলাম ধর্মের মানুষ বাড়ছে- এ পর্যন্তই? এটাই কি শেষ কথা?

পৃথিবীতে ১৫০ কোটি মানুষ মুসলমান। সংখ্যাটা খেয়াল করুন, ১৫০ কোটি! তাতে মানবজাতির কী লাভ হয়েছে? ঐ মুসলমানদেরই বা কী লাভ হয়েছে? তাদের সম্মান বেড়েছে? ইসলামের সম্মান বেড়েছে? প্রভাব-প্রতিপত্তি বেড়েছে? না। সংখ্যার সাথে সাথে কেবল একটা জিনিসই বাড়ছে- সেটা হচ্ছে মুসলিমদের প্রতি নির্যাতন, নিপীড়ন, লাঞ্ছনা আর অপমানের মাত্রা। আজ মুসলিমদের প্রতিটি নতুন দিন আগের দিনের চেয়ে বেশি কষ্ট ও নির্মমতার বার্তা নিয়ে হাজির হয়।

পৃথিবীর ৬৫০ কোটি অমুসলিম কি খুব অশান্তিতে আছে, আর ১৫০ কোটি মুসলমান জান্নাতের বাগানে অবস্থান করছে? যদি তা না হয়, যদি দেখা যায় বাস্তব অবস্থা তার ঠিক উল্টো তাহলে আপনি এই যে এত সাধনা করে, অতুলনীয় মেধা খাটিয়ে অমুসলিমকে মুসলিম বানিয়ে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন- তার যৌক্তিকতা কোথায়?

অন্য ধর্ম পশ্চাদপদ আপনার ধর্মও পশ্চাদপদ, অন্য ধর্ম সাম্প্রদায়িক আপনার ধর্মও সাম্প্রদায়িক, অন্য ধর্ম নির্জীব আপনার ধর্মও নির্জীব, অন্য ধর্ম দুনিয়াবিমুখ আপনার ধর্মও দুনিয়াবিমুখ, অন্য ধর্ম ব্যবসার পণ্য আপনার ধর্মও ব্যবসার পণ্য, অন্য ধর্ম পুরোহিতকেন্দ্রিক আপনার ধর্মও পুরোহিতকেন্দ্রিক, তাহলে একজন অন্য ধর্মের মানুষ আপনার ধর্ম গ্রহণ করলেই কি আর না করলেই কী?

এখানেও শেষ নয়। বর্তমান বিশ্বে আপনার ধর্মের দোহাই দিয়ে শুরু হওয়া সন্ত্রাসবাদ সারা পৃথিবীর মানুষকে যতটা আতঙ্কিত করে রেখেছে, আপনার ধর্ম সাম্রাজ্যবাদীদের যতটা পারপার্স সার্ভ করছে, অন্য ধর্ম কিন্তু তার কাছেধারেও নাই। অন্য ধর্মের মানুষ তাদের নিজের ধর্মের মানুষকে কেবল ভিন্নমতের কারণে খুন করে বেহেশতে যাবার আশা করে না, কিন্তু আপনার ধর্মে সেটা ১৩০০ বছর ধরে চলে আসছে। অন্য ধর্মের মানুষ তাদের উপাসনলায়ে বোমা মারে না, আপনার ধর্মের মানুষ প্রায়ই মারে। এমন উদাহরণের শেষ নাই।

সবচেয়ে বড় কথাটি হচ্ছে- আজকে মুসলিম বিশ্ব বেশি শান্তি ও নিরাপত্তার মধ্যে আছে নাকি পশ্চিমা বিশ্ব? নিশ্চয়ই পশ্চিমা বিশ্ব। তাহলে কেন তারা ইসলাম গ্রহণ করবে? আপনি বলবেন পারলৌকিক মুক্তির জন্য, তাই তো? কিন্তু বিশ্বনবী তো বলেছেন, ‘দুনিয়া হলো আখেরাতের শস্যক্ষেত্র।’ যারা দুনিয়াতে অশান্তিতে জ্বলছে, তাদের পরকাল কি শান্তিপূর্ণ হবার কথা? আপনার যুক্তিবিদ্যা কী বলে?

ধরুন, এই মুহূর্তে আপনার কথায় মুগ্ধ হয়ে, ‘ইসলামই সেরা ধর্ম’ এর পক্ষে আপনার অকাট্য যুক্তি মেনে নিয়ে, আপনার দাওয়াত গ্রহণ করে দুনিয়ার আটশ’ কোটি মানুষ ইসলাম গ্রহণ করে মুসলিম হয়ে গেল। তাতে মানবজাতি আসন্ন তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধসহ চলমান সমস্ত যুদ্ধ-বিগ্রহ থেকে মুক্তি পাবে কি? সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতার যখম শুকিয়ে যাবে কি? অর্থনৈতিক সুবিচার প্রতিষ্ঠিত হবে কি? রাজনীতির নামে হানাহানি, রক্তারক্তি বন্ধ হবে কি? মুসলিম হবার কারণে স্বৈরশাসকরা গদি ছেড়ে সাধারণ মানুষের কাতারে নেমে যাবে কি? মানবজাতি ঐক্যবদ্ধ হবে কি? আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চা ও প্রযুক্তির অগ্রগতি বাধাহীনভাবে সামনে এগোতে পারবে কি? ধর্মব্যবসা বন্ধ হবে কি? রাজনীতিতে ধর্মের অপব্যবহার বন্ধ হবে কি? মানুষের ধর্মবিশ্বাসকে ব্যবহার করে হুজুগ আর গুজবপ্রবণতা থেমে যাবে কি?

নির্মোহ উত্তর হচ্ছে- হবে না। কিছুই বন্ধ হবে না। আজ সারা মুসলিম বিশ্ব যেভাবে অন্যায়, অবিচার, যুদ্ধ, রক্তপাত, দারিদ্র, বেকারত্ব, কুসংস্কার, পশ্চাদপদতা আর ভ্রাতৃঘাতী অনৈক্য-সংঘাতে লিপ্ত রয়েছে, সেই অশান্তি, রক্তপাতেরই বিশ্বায়ন হবে মাত্র। দেখা যাবে বাকি পৃথিবীর লোকেরাও কেউ শিয়া হয়ে সুন্নির মসজিদে বোমা মারবে, নয়তো সুন্নি হয়ে শিয়ার মসজিদে বোমা মারবে।

সুতরাং এই মুহূর্তে অমুসলিমকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করানোর দাওয়াতের চেয়ে বড় গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে আল্লাহ-রসুলের প্রকৃত ইসলাম ও বর্তমানের বিকৃত ইসলামের মধ্যে বিভেদরেখা টেনে দেওয়া। কোনটা ইসলাম আর কোনটা ইসলাম না- এই প্রশ্নের সুস্পষ্ট সমাধানে পৌঁছনো। জাতির পতন ও পচনের কারণ চিহ্নিত করা। বিশ্বময় তাদের উপর যে গজব নেমে এসেছে তার গোড়া খুঁজে বের করা। আল্লাহ কেন এই জাতির অভিভাবকত্ব ত্যাগ করেছেন সে প্রশ্নের উত্তর সন্ধান করা। তারপর জাতিকে তওহীদের ভিত্তিতে যাবতীয় ন্যায় ও সত্যের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ করা। এই কাজ ত্যাগ করে অন্য যা কিছু করা হবে তা হবে অর্থহীন। ইসলামকে মহান প্রমাণ করতে আপনি যে শ্রম ও মেধা ব্যয় করছেন তাও অর্থহীন। একজন অমুসলিমকে ইসলাম গ্রহণ করাতে পেরে যে তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন তাও অর্থহীন।


Like it? Share with your friends!

0

What's Your Reaction?

লল লল
0
লল
আজাইরা আজাইরা
0
আজাইরা
চায়ের দাওয়াত চায়ের দাওয়াত
0
চায়ের দাওয়াত
জট্টিল মামা জট্টিল জট্টিল মামা জট্টিল
0
জট্টিল মামা জট্টিল
এ কেমন বিচার? এ কেমন বিচার?
0
এ কেমন বিচার?
কস্কি মমিন! কস্কি মমিন!
0
কস্কি মমিন!
কষ্ট পাইছি কষ্ট পাইছি
0
কষ্ট পাইছি
মাইরালা মাইরালা
0
মাইরালা
ভালবাসা নাও ভালবাসা নাও
0
ভালবাসা নাও

Comments 0

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ইসলাম গ্রহণের খবরে যারা খুশিতে বাকবাকুম হন

log in

Become a part of our community!

reset password

Back to
log in
Choose A Format
Personality quiz
Series of questions that intends to reveal something about the personality
Trivia quiz
Series of questions with right and wrong answers that intends to check knowledge
Poll
Voting to make decisions or determine opinions
Story
Formatted Text with Embeds and Visuals
List
The Classic Internet Listicles